থার্ডআই ডেস্ক:

বাংলাদেশকে ১৭৮ কোটি ডলারের ঋণ সহায়তা প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক বা এডিবি। উত্তর-পূর্ব ভারত, ভুটান ও মিয়ানমারের সঙ্গে স্থলপথে আঞ্চলিক বাণিজ্য, পরিবহন ও সড়ক নিরাপত্তার উন্নয়নের জন্য এ অর্থ ব্যবহার হবে।

ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলা ভিত্তিক আঞ্চলিক আর্থিক সংস্থাটির ওয়েবসাইটে দেওয়া এক বিবৃতিতে শুক্রবার এ তথ্য দেওয়া হয়।

সেখানে বলা হয়, বাংলাদেশের আখাউড়া, শিওল ও তামাবিল স্থল বন্দরের মাধ্যমে উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলোর সঙ্গে চট্টগ্রাম বন্দরের মধ্যে একটি নতুন বাণিজ্য রুট চালু করতে এই আর্থিক সহায়তা উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে। দক্ষিণ এশিয়া উপ-আঞ্চলিক অর্থনৈতিক সহযোগিতার যে কর্মসূচি রয়েছে তাতে এই রুট চট্টগ্রাম বন্দরের সঙ্গে ভুটান ও মিয়ানমারকেও যুক্ত করার কথা রয়েছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, দক্ষিণ এশিয়া উপ-আঞ্চলিক অর্থনৈতিক সহযোগিতার ক্ষেত্র প্রস্তুত করতে এ অঞ্চলের দেশগুলো গত দুই দশকে পরিবহন ও বাণিজ্যের সুযোগ সৃষ্টির জন্য এ পর্যন্ত এক হাজার ৪৩০ কোটি ডলার ব্যয় করেছে। যার মধ্যে রয়েছে এক হাজার ১৪০ কোটি ডলারের ৪৩টি পরিবহন প্রকল্প।

এডিবির দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক পরিবহন সংক্রান্ত বিশেষজ্ঞ সাতমি সাগাগুচি বলেন, বাংলাদেশের রপ্তানি ভিত্তিক অর্থনৈতিক উন্নয়নের ভিত্তিকে আরও শক্তিশালী করতে নতুন এই পরিবহন ব্যবস্থা দেশটিকে আঞ্চলিক যোগাযোগ ও বাণিজ্যের কেন্দ্রস্থলে পরিণত হওয়ার সুযোগ সৃষ্টি করবে। এ লক্ষ্য অর্জনের জন্য বাংলাদেশের পরিবহন অবকাঠামো উন্নয়ন জরুরি বলে তিনি উল্লেখ করেন। ১৯টি ঋণ ও একটি অনুদানের মাধ্যমে এডিবি বর্তমানে বাংলাদেশের পরিবহন খাতের ১২টি প্রকল্পে মোট ২৯৮ কোটি ডলার অর্থায়ন করছে।